আমাদের দেশদেশধর্ম ও দর্শন

নামাজের ফরজ সমুহ

21views

প্রত্তেক কাজের জন্য কিছু নিয়ম কানুন থাকে। ঠিক তেমনি নামাজ পড়ার জন্যওে কিছু নিয়ম কানুন আছে যেগুলো ভুল হলে নামাজ ভেঙে যাবে অথ্যাৎ নামাজ হবে না। সেই সকল বিষয়ের প্রতি আমাদের অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে। আজ আমরা আলোচনা করবো নামারে ফরজ নিয়ে।

নামাজের ফরয মোট ১৩ টি এর মধ্যে ২ টি ভাগ আছে নামাজ শুরু করার আগে ও পরে নামাজ শুরু করার আগে  ৭ টি ও শুরু করার পরে ৬ টি ।

শুরু করার আগের ৭ টি ফরজ হল:-

১/  শরীর পাক। অথ্যাৎ শরীরে যে কোন প্রকার নাপাক লেগে থাকলে তা পরিষ্কার করতে হবে। আর যদি গুসল ফরজ হয়ে থাকে তাহলে অবশ্যই ‍গুসল করে নিতে হবে।

২/ কাপড় পাক। আপনার কাপড় পাক( পবিত্র) থাকতে হবে। যদি পরিধান করার মত পাক কোন কাপড় না থাকে তাহলে যেই যায়গতে নাপাক লেগেছে ঐ জায়গাটি ধুয়ে নিতে হবে।

৩/ নামাজের জায়গা পাক। আপনি যেই জায়গায় নামাজ পড়বেন ঐ যায়গাটি পাক থাকতে হবে। জায়গা পাক কিনা সে বেপারে সন্দেহ থাকলে ঐ জায়গার উপর কাপর বা এমন কিছু বিছিয়ে নিলেই হবে।

৪/ সতর ঢাকা। পুরুষ ও মহিলাদের জন্য সতরের পরিমান আলাদা । পুরুষের জন্য সতর হলো নাভির নিচ থেকে টাকনুর উপর পর্যন্ত। আর মহিলাদের সতর হলো মুখ, হাতের কব্জি,ও পায়ের টাখনু ছাড়া বাকি পুর্ণ শরীর সতর। এই জায়গার কোন অংশ খুলা থাকলে নামাজ হবে না।

৫/ কেবলামুখী হওয়া। কেবলার দিকে মুখ ফিরিয়ে নামাজ পড়তে হবে। অন্যদিকে মুখ করে নামাজ পড়লে নামাজ হবে না।

৬/  ওয়াক্ত ( সময় ) অনুযায়ী নামাজ পড়া । সময় পাড় হয়ে গেলে নামাজ পড়লে নামাজ হবে না।

৭/ নিয়্যাত করা। নিয়্যাত করা বলতে এখানে নামাজের নিয়ত করারা কথা বলা হয়েছে অথ্যাৎ আপনি যেই নামাজ পড়ছেন সেই নামাজের নিয়ত করতে হবে

যেমন:- আপনি যোহরের ফরজ নামাজ পড়ছেন আপনাকে নিয়ত করতে হবে  যে আমি যোহরের ৪ রাকাত ফরজ নামাজ পড়ছি।

নামাজ শুরু করার পর টি ফরজ আছে

১/  তাকবীরে তাহরিমা বা আল্লাহু আকবার বলা। নামাজ শুরু করার সময় আমরা  দুই হাত উছানোর সময় যে আল্লাহু আকবার বলি সেটা বলতে হবে না বল্লে নামাজ হবে না।

২/ দাঁড়াইয়া নামাজ পড়া। ফরজ নামাজ ও ওয়াজিব নামাজ দাড়িয়ে পড়া ফরজ। যদি কেউ দাড়িযে পড়তে অক্ষম হয় তাহলে বসে পড়তে পারবে।

৩/ কেরাত পড়া। প্রত্তেক নামাজে সুরা ফতেহার পর কমপক্ষে ৩ আয়াত পরিমান অন্য সুরা  পড়া।

৪/ রুকু করা। প্রত্তেক রাকতে ২ টি করে রুকু করা। ২টির কম করলে নামাজ হবে না ।

৫/ সেজদা করা। প্রত্তেক রাকতে ২ টি করে সেজদা করা ২টির কম করলে নামাজ হবে না ।

৬/ শেষ বৈঠক। ২/৩/৪ রাকাত বিশিষ্ট নামাজে শেষ রাকাতে আত্যাহিয়াতু,দুরুদ শরিফ ও দয়া মাসুরা পড়ে নামাজ শেষ করা।

এই মোট ১৩ টি বিষয় যদি কেউ ছেড়ে দেয় ( না পালন করে ) তাহলে তার নামাজ হবে না । পুনরায় আবার নামাজ পড়তে হবে। তাই আমরা যখন নামাজ পড়বো তখন এই বিষয়গুলোর উপর অবশ্যই খেয়াল রাখবো যেন এইগুলো কিছুতেই ভুল না হয় । আল্লাহ আমাদের সকলকেই খেয়াল করে সহি সালামতে নামাজ পড়ার তৌফিত দান করুন।

Source :