আমাদের দেশদেশধর্ম ও দর্শন

বাংলাদেশের সেরা ৫ টি আলিয়া মাদরাসা

2.7kviews

বাংলাদেশে অগনিত মাদরাসা রয়েছে এর মধ্যে কিছু মাদরাসা আছে যেগুলো তুলনায় অনেক বড় ও এই মাদরাসাগুলোর প্রসিদ্ধি অনেক বেশি। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে ছাত্ররা এখানে পড়া-লেখা করতে আসে। এবেং প্রতি বছর এখান থেকে হাজার হাজার ছাত্র দাখিল আলিম ও ফাজিল শেষ করে দেশের বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে পড়ে, দেশের জন্য কল্যানকর কাজ করার জন্য।

দারুন্নাজাত সিদ্দিকিয়া কামিল মাদ্রাসা

এই বিসাল মাদরাটি ডেমরা-নারায়ণগঞ্জ রোডের পশ্চিম পাশে, ১৯৪৬ ঈসায়ী সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল । ছায়া ঢাকা পাখি ডাকা মনোরম পরিবেশে অবস্থিত দেশের অন্যতম শ্রেষ্ঠ ইসলামী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ঐতিহ্যবাহী দারুননাজাত সিদ্দীকিয়া কামিল মাদরাসা। এটি প্রতিষ্ঠা করেন  শাহ সূফী আবু জাফর মুহাম্মাদ সালেহ র.।

বর্তমানে ,মাদরাসার ১৬ টি ছোট বড় বিল্ডিং ও টিন সেড ঘর আছে। বিষাল এই মাদরাসাটি ১৩৮.১৬ শতাংশ জমি জুরে বিস্ত্রীত। মাদরাসাটি থেকে প্রতি বছর শিক্ষাপুন্জিকা বের করা হয় । এবং ছাত্রদের জন্য রয়েছে শিক্ষা সফরের ব্যবস্তা।

তামিরুল মিল্লাত কামিল মাদ্রাসা টঙ্গী শাখা

নারীদেরকে  দ্বীনি শিক্ষায় শিক্ষিত করার লক্ষ্যে ২০০০ সালেনর শুরুরদিকে রাজধানীর উপকন্ঠে তা’মীরুল মিল্লাত ট্রাস্ট পথ চলা শুরু করে। পরে ধিরে ধিরে তারা মাদরাসাটির পরিধি বড় করতে থাকে। বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ২০১০ সাল থেকে ৪ বছর মেয়াদী ফাযিল সম্মান (অনার্স) কোর্স চালু। এই মদিরাসায় শুধু দাখিল, আলিম, ফজিলই নয়, পড়ানো হয় হিফজ বিভাগও ছেলে মেয়েরা এখান থেকে পবিত্র কুরআনে কারিমের হাফেজ হয়। এখন এই মাদরাসায় ৪২ জন শিক্ষক- শিক্ষীকা রয়েছে। ও ২০ জন কর্মচারি রয়েছে। বর্তমানে মাদরাসাটির ছাত্র-ছাত্রির সংখা অনেক।

ঝালকাঠি এন এস কামিল মাদ্রাসা

মাওঃ মুহাম্মদ আযীযুর রহমান নেছারাবাদী (কায়েদ সাহেব)  ১৯৫৬ সালে মাদরাসাটি প্রতিষ্ঠা করেন।  ১৯৬১ সালে মাদরাসাটি দাখিল ও ১৯৮৬ সালে কামিল পর্যায়ে উন্নীত হয়। এটি ঝালকাঠি জেলার বাসন্ডায় অবস্থিত। এই মাদরাসাটিতে দাখিল, আলিম, ফাযিল ও কামিল পর্যন্ত শিক্ষা ব্যবস্থা রয়েছে। বিভিন্ন বোর্ড পরিক্ষায়  ১ম, ২য়, ও ৩য় স্থান অধিকার করার ধটনা রয়েছে অনেক। যা আপনাকে সেখানে এডমিট হতে আগ্রহ বাড়াবে।

ছারছিনা দারুসসুন্নাত কামিল মাদ্রাসা

ছারছিনা দারুসসুন্নাত কামিল মাদ্রাসা বাংলাদেশের প্রথম স্বীকৃত কামিল (টাইটেল)মাদ্রাসা। এটি ১৯১৫ সালে ১৫ জানুয়ারি, প্রতিষ্ঠিত হয় । ছারছীনা দরবারের প্রতিষ্ঠাতা ও পীর আল্লামা নেছার উদ্দীন আহমেদ এটি প্রতিষ্ঠা করেন। মাদ্রাসাটি সরকারি অনুমোদন লাভ করে ১৯২৭ সালে  মাদরাসাটি ২০.০০ একর জমির ওপ স্খাপিত। মাদরসিাটিতে বর্তমানে ৪৭ জন শিক্ষক ২০ জন কর্মচারি রয়েছে। এখানে বিনামূল্যে ছাত্রাবাসে প্রায় ১৫০০ ছাত্রের থাকা ও খাওয়ার ব্যবস্থা রয়েছে। শায়েখ আল্লামা নুরুল ইসলাম ফারুকী , কবি রুহুল আমিন খান এবং উনাদের মত আরো অনেক বড় বড় ব্যক্তিরা এই প্রতিষ্ঠানে পড়া লেখা করেছেন।

ধাপ সাতগাড়া বায়তুল মুকাররম মডেল কামিল মাদরাসা

আলহাজ্ব ড. সালামাতুল্লাহ চৌধুরী ১ জানুয়ারী ১৯৮২ সালে মাদারসাটি প্রতিষ্ঠা করেন।মাদরাসাটি  ১.৮৭ একর জমির উপর প্রতিষ্ঠিত। এটি একটি বেসরকারি মাদরাসা প্রতি বছর এখান থেকে ভাল রেজাল্টের খবর শুনা যায়। এই মাদরাসাটি বাংলাদেশের সেরা ১০ মাদরাসার তালিকায় স্তান করে নিয়েছে। বিসাল এই মাদরাসাটি ১৯৮২ সাল থেকে ধাপে ধাপে নিজেকে বড় ও সুনামের সাথে এগিয়ে যাচ্ছে।

Source :