২০২১ সালে শাওমি নিয়ে এলো MI 10i, আসা করা যাচ্ছে প্রতিযোগীতামূলক বাজারে অত্যন্ত দৃড় সারা প্রদান করবে এই সেটটি। ফোনটি বেশ কয়েকটি এক্সপেন্সিভ ফিচার নিয়ে এসেছে যা এর বেশিরভাগ প্রতিযোগীদের চেয়ে সুলভ মূল্যে। ব্যবহারকারীরা ফোনটিতে পাবে ১০৮ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি ক্যামেরা, যার পারফরম্যান্স এবং প্রতিচ্ছবি খুব আকর্ষণীয়, এটিতে রয়েছে ১২০ হার্জ আইপিএস-এলসিডি ডিসপ্লে। ফোনটি নিজেই তার মার্জিত ডিজাইনের জন্য একটি অত্যাশ্চর্য ডিভাইস। পার্শ্ব-মাউন্ট করা ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরটি সত্যই ভাল কাজ করে। আপনি ফোনে একটি হেডফোন জ্যাক পাবেন, যা সত্যিই দুর্দান্ত।

MI 10I বিস্তারিত রিভিউ

শাওমি MI 10I চালু করার সাথে সাথে ২০২১ সালটিকে শক্তিশালী করে তুলছে। ওয়ানপ্লাস নর্ড দ্বারা নিয়ন্ত্রিত মিড-রেঞ্জ বিভাগে ফোনটি আসে। MI 10I এর সাথে পাবেন বেশ কয়েকটি অসাধারণ ফিচার যা আপনাকে দিচ্ছে ১০৮ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি ক্যামেরার মতো আরও ব্যয়বহুল ডিভাইস, এমন একটি ডিসপ্লে যা ১২০ হার্জ রিফ্রেশ রেট এবং স্পোর্টস আইপি ৫৩ রেটিং পর্যন্ত যায়।

MI 10I পারফরমেন্স

শাওমি এই ফোনটিতে থাকছে নতুন কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৭৫০জি চিপসেট প্রসেসর। এটির সাহায্যে আপনি ২.২ গিগাহার্জ পর্যন্ত ২ পারফরম্যান্স কোর এবং ১.৮ গিগাহার্জ পর্যন্ত ৬৫ টি দক্ষতার কোর পাবেন। ফোনটিতে থাকছে ইউনিটটি ৬ ও ৮ গিগাবাইট র‌্যাম। এখন কোয়ালকম, গত এক বছরে বেশ কয়েকটি চিপসেট চালু করেছে। স্ন্যাপড্রাগন ৭৬৫জি সহ ওয়ানপ্লাস নর্ড স্ন্যাপড্রাগন, ৭২০ জি সহ ওপ্পো রেনো ৪প্রো এবং এখন ৭৫০জি সহ মি MI 10I রয়েছে। স্ন্যাপড্রাগন ৭৬৫ জি এই লাইনআপের শীর্ষে থাকা এসওসি হিসাবে ৭৫০জি, ৭৬৫জি এবং ৭২০জি এর মধ্যে অবস্থান করছে।

MI 10I এর সম্পূর্ণ ফিচারসমূহঃ

নেটওয়ার্ক
প্রযুক্তিঃ জিএসএম / এইচএসপিএ / এলটিই / ৫জি
২ জি ব্যান্ডঃ জিএসএম ৮৫০/৯০০/১৮০০/১৯০০ – সিম ১ এবং সিম ২
৩ জি ব্যান্ডঃ এইচএসডিপিএ ৮৫০/৯০০/১৯০০/২১০০
৪ জি ব্যান্ডঃ এলটিই
৫ জি ব্যান্ডঃ এসএ / এনএসএ
স্পিডঃ এইচএসপিএ ৪২.২ / ৫.৭৬ এমবিপিএস, এলটিই-এ, ৫জি

বডি
আয়তনঃ ১৬৫.৪ x ৭৬.৮ x ৯ মি.মি (৬.৫১ x ৩.০২ x ০.৩৫ ইঞ্চি)
ওজনঃ ২১৫ গ্রাম
নির্মাণঃ সামনে (গরিলা গ্লাস ৫), পেছনে (গরিলা গ্লাস ৫)
সিমঃ হাইব্রিড ডুয়েল সিম (ন্যানো সিম, ডুয়েল স্ট্যান্ড বাই)

ডিসপ্লে
টাইপঃ আইপিএস এলসিডি ক্যাপাসিটিভ টাচস্ক্রিন, ১৬এম কালার
আকারঃ ৬.৬৭ ইঞ্চি, ১০৭.৪ সেমি
রেগুলেশনঃ ১০৮০ x ২৪০০ পিক্সেল, ২০: ৯ অনুপাত (~ ৩৯৫ পিপিআই ঘনত্ব)
সুরক্ষাঃ কর্নিং গরিলা গ্লাস 5
বৈশিষ্ট্যঃ এইসডিআর ১০, ১৫০ হার্জ, ৪৫০নিট (টাইপ)

প্ল্যাটফর্ম
ওএসঃ এন্ড্রয়েড ১০, এমআইইউআই ১২
চিপসেটঃ কোয়ালকম এসএম ৭২২৫ স্ন্যাপড্রাগন ৭৫০জি ৫জি (৮ এনএম)
সিপিইউঃ অক্টা-কোর (২x২.২ গিগাহার্টজ ক্রিয়ো ৫৭০ এবং ৬x১.৮ গিগাহার্জ ক্রিয়ো 570)
জিপিইউঃ অ্যাড্রেনো ৬১৯

মেমরি
কার্ড স্লটঃ মাইক্রোএসডিএক্সসি (শেয়ার করা সিম স্লট ব্যবহার করে)
অভ্যন্তরীণ মেমরিঃ ১২৮/২৫৬ জিবি ইউএফএস ২.২
র‍্যামঃ ৬/৮ জিবি

ক্যামেরা
প্রাইমারি ক্যামেরাঃ ১০৮ মেগাপিক্সেল, ৮ মেগাপিক্সেল, এফ / ২.২, ১১৮˚ (আল্ট্রাওয়াইড),২ মেগাপিক্সেল, এফ / ২.৪(ম্যাক্রো), ২ মেগাপিক্সেল, এফ / ২.৪, (গভীরতা)
ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ১৬ মেগাপিক্সেল
বৈশিষ্ট্যঃ দ্বৈত-এলইডি ডুয়াল-টোন ফ্ল্যাশ, এইচডিআর, প্যানোরামা, এইচডিআর, প্যানোরামা
ভিডিওঃ ৪কে @ ৩০ এফপিএস, ১০৮০পি @ ৩০/৬০এফপিএস, গাইরো-ইআইএস, ১০৮০পি @ ৩০এফপিএস, গাইরো-ইআইএস

ব্যাটারি
ব্যাটারির ধরনঃ অপসারণযোগ্য নয়ে, লি-পো
ব্যাটারির ক্ষমতাঃ ৪৮২০ এমএএইচ
চার্জিংঃ দ্রুত চার্জিং ৩৩ ওয়ার্ড, ৫৮ মিনিটে ১০০% পাওয়ার ডেলিভারি

ডিজিট রেটিং ৭৫/১০০

ডিজাইন ৭৮
পারফরমেন্স ৭৬
ফিচারস ৭১
দাম ৭২

সুবিধাঃ

১০৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরাটি দিচ্ছে আকর্ষণীয় আউটপুট
১২০হার্জ রিফ্রেশ রেট ডিসপ্লে।
পার্শ্ব-মাউন্ট করা ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর এবং আইপি ৫৩ রেটিং সহ দুর্দান্ত নকশা।

অসুবিধা:

ডিসপ্লেটিতে অতিমাত্রায় আলো প্রতিফলিত হয়।
মাইক্রোএসডি কার্ড স্লট এবং সেকেন্ডারি সিম স্লট এর জন্য একটি মাত্র জায়গা।

Leave A Comment